ঢাকা | রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
মুক্তমত সিতার মিয়া

"খন্দকার মোশতাক চক্রের প্রেতাত্নারা নানা মুখোশে রাজনীতি করছে সর্বত্র"

প্রকাশিত হয়েছে: ২৩-০৯-২০১৭ ইং । ০৬:৩৯:৪৬

সারা দেশের মত সিলেটেও খন্দকার মোশতাক চক্রের প্রেতাত্নারা নানা মুখোশে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতি করছে সর্বত্র।বঙ্গবন্ধু হত্যার পর আওয়ামীগের ঘরানার লোক তাদেরকেই বলা যায়, যারা সেদিন বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদে প্রতিরোধ সংগ্রামে জীবনবাজী রেখে অংশগ্রহন করেছিল।এমনকি জীবনের ঝুকি নিয়ে জয়বাংলা-জয়বঙ্গবন্ধু শ্লোগানে আকাশ-বাতাস প্রকম্পিত করেছিল।আর তখন আওয়ামীলীগের দুর্দিনে-দুঃসময়ে দেশের অন্যান্য জায়গার মত সিলেটে ও খন্দকার মোশতাকের প্রেতাত্নাদের চক্রান্ত কম ছিলনা।আওয়ামীলীগের বর্ণাঢ্য ইতিহাসে কলংক্ষের তিলক লেপন হয়েছে খন্দকার মোশতাকের প্রেতাত্নাদের কারনে।যেমন খন্দকার মোশতাকের সাথে যে ব্যাক্তি উপ রাষ্ট্রপতি হয়েছিল সে মোহাম্মদ উল্রাহ আওয়ামীলীগে যোগ দিয়ে নমিনেশন পেয়েছিল।রহস্যময় পুরুষ মিজান চৌধুরীও আওয়ামীলীগ নেতা হিসেবে ইন্তেকাল করেছে।এর নাম হয়তো ভাগ্যলিপি।সারা বাংলাদেশের কথা না'ই বললাম,সিলেটের কথা বলতে গেলে বলা যায়,যারা বঙ্গবন্ধুর রক্ত শুকিয়ে যাবার আগেই খন্দকার মোশতাক এর পুরান ঢাকার আগামুসি লেন নামক বাসায় নিরবধি যোগাযোগ করেছিল তারাই আবার সিলেটের মাটিতে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে বহাল তবিয়তে রাজনীতি করেছে।আর সৈয়দা জোহরা তাজ উদ্দিন, সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী,বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম, শামছুদ্দিন মোল্লা‘র মত পরিক্ষিত নেতাদের জীবনবাজির আদর্শ রক্ষার যুদ্ধে সিলেটে যারা আওয়ামীলীগের পতাকা উচু করে তুলে ধরেছিল তারা কালের গর্ভে যড়যন্ত্রের রোষানলে পড়ে নাম-কাওয়াস্তে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে ঠিকে আছে মাত্র।সারাদেশের কথা বাদই দিলাম কিন্তূ সিলেটের রাজনীতিতে দেখা যাচ্ছে খন্দকার মোশতাক ও মিজান চৌধুরী অনুচর-সহচররা আবার তাদের পরিকল্পিত সামান্তবাদি মনস্তাত্ত্বিক এজেন্টা বাস্তবায়ন করার জন্য সিলেটের বিশ্বনাথ সহ সব কয়টি উপজেলার নকশা অংকন করছে।সুতরাং মিজানবাদী-মোশতাকবাদী কুচত্রুীমহল কে তাদের অতীত ইতিহাসের আলোকে চিহিৃত করে এদের মুল উৎপাঠন করতে হবে।এবং এদের নাম ঠিকানা,নিশানা-আস্তানা বংশ পরিক্রমা বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার কাছে লিখিত ভাবে দরখাস্ত আকারে জমা দিতে হবে।এই কাজটির দায়িত্ব বঙ্গবন্ধু ভক্ত কাউকে না কাউকে নিতেই হবে!আর তাহলে প্রেতাত্না মুক্ত হবে আওয়ামীলীগ।
লেখক:সাবেক সদস্য,কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

শেয়ার করুন
সর্বশেষ খবর মুক্তমত
  • খালেদা জিয়ার সাজা কেন?
  • যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক জসিম উদ্দিন সেলিমের খোলা চিঠি
  • কারাগার ডাকছে
  • ঢাবিতে লেডি মাস্তান!
  • ইংল্যান্ডকে আমরা বিলেত বলি কেন?
  • ভালো থাকুন ওপারে
  • শিক্ষক মেরে শিক্ষা বাঁচানো যায় না
  • গতানুগতি আলিম ছিলেন না তিনি
  • আসুন ভালোবাসার লড়াই করি
  • রাস্তা ঘাটের বেহাল দশার জন্য দায়ী কারা?
  • বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে আপনার করনীয়
  • সাইদুর এবং..
  • ‘বঙ্গশার্দূল’ ওসমানী অবহেলিত কেন ?
  • "খন্দকার মোশতাক চক্রের প্রেতাত্নারা নানা মুখোশে রাজনীতি করছে সর্বত্র"
  • নোবেল কি পাবেন শেখ হাসিনা?
  • ‘ঈদ’-‘ইদ’ বানান বিতর্ক, বাস্তবতা ও একটি প্রস্তাব
  • বাঙ্গালি দ্বারা রোহিঙ্গা নির্যাতন..!!!
  • হায় হেফাজত!
  • ‘আমরা সামরিক ভাষায় কথা বলতে চাই’
  • জনগণের হাতে দেশের মালিকানা ফিরিয়ে দেয়ার দৃঢ় প্রতিজ্ঞা বিএনপি’র
  • এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।