ঢাকা | রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
বাংলাদেশ

কি ছিল আদালতে খালেদা জিয়ার বক্তব্য?

বাংলাপেইজ রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে: ০৫-১২-২০১৭ ইং । ১৩:৫৪:৩৯

জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে অসমাপ্ত বক্তব্য দিতে রাজধানীর বকশীবাজার বিশেষ আদালতের পৌঁছেছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।

আদালতে পৌঁছে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া বলেন, আমাদের রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী পক্ষ বিশেষ করে, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী ও তার মন্ত্রী পরিষদের কতিপয় সদস্য প্রায়শই আমাকে জড়িয়ে জনসম্মুখে মিথ্যা বক্তব্য প্রচার করে।

আমি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের অনুকূলে কখনো কোন অর্থ নেইনি। আমি এই ট্রাস্টের তহবিল সংগ্রহ, বন্টন এবং কোনো রকম ব্যাংকিং লেনদেনের সঙ্গে কোনো ভাবে জড়িত ছিলাম না।

কাজেই এর মাধ্যমে নিজের লাভবান হওয়ার বা অন্য কাউকে লাভবান করার কোন প্রশ্নই উঠতে পারে না। বিএনপি সরকার একজন বিচারপতির নেতৃত্বে স্বাধীন দুর্নীতি দমন কমিশন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন প্রণয়ন করে।

সাক্ষী হারুণ অর রশীদ একজন অনুসন্ধানকারীরা ও তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসাবে কোনো দালিলিক প্রমাণ ছাড়া আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার উদ্দেশ্যে এই রূপ মনগড়া সাক্ষ্য দিয়েছেন।

আমি আরো উল্লেখ করতে চাই যে, এই সাক্ষী হারুণ অর রশীদকে কমিশনের সেটআপে অন্তর্ভূক্ত না করায় পরবর্তীতে আমার বিরুদ্ধে মামলা করা এবং সাক্ষী দেয়ার জন্য তাকে আবার কমিশনে ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সময়মতো হাজির না হওয়ায় গত ৩০ শে নভেম্বর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

১৯ অক্টোবর এ দুই মামলায় তার জামিন মঞ্জুর করেন আদালত। ওইদিন তিনি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে নিজের বক্তব্য উপস্থাপন শুরু করেন।

উল্লেখ্য, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট রাজধানীর তেজগাঁও থানায় একটি মামলা করে দুদক। আর জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের নামে এতিমদের জন্য বিদেশ থেকে আসা ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রাজধানীর রমনা থানায় অপর মামলাটি দায়ের করা হয়।

এছাড়া জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় অপর একটি মামলা করে দুদক।


#এস আর/বাংলাপেইজ

শেয়ার করুন
সর্বশেষ খবর বাংলাদেশ
  • জাতীয় পার্টির কাছে মানুষ নিরাপদ
  • হাইকোর্টের রোববারের কার্যতালিকায় খালেদার জামিন আবেদনের শুনানি
  • পুলিশি নির্যাতনের প্রতিবাদে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি সোমবার
  • পরিচয় দেয়ার পরও পুলিশি নির্যাতনের শিকার সাংবাদিক
  • সরকার যেভাবে দেশ শাসন করছে সেটা রোমের চেয়েও ভয়ঙ্করঃ মওদুদ
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপির সভাপতি গ্রেফতার
  • বিএনপি নেত্রী নিপুর রায় আহত হয়েহাসপাতালে
  • বিএনপি নেতা আলাল আটক
  • বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা চালিয়েছে পুলিশঃ মির্জা ফখরুল
  • ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের আশঙ্কায় সরাইলে ১৪৪ ধারা জারি
  • বিএনপি কালো পতাকা কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠিচার্জ, ব্যাপক ধরপাকড়
  • আবারও বাড়ল চালের দাম
  • আজ বিএনপির কালো পতাকা প্রদর্শন
  • ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের নিপীড়নমূলক অংশগুলো বাতিল করুন
  • পোশাককর্মীকে ধর্ষণের দায়ে : গ্রেফতার ২
  • ট্রেন দূর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেলেন প্রতিমন্ত্রী মান্নান
  • রাজধানীতে মাদকসহ গ্রেপ্তার ৫৬
  • ফেসবুকে বিদেশি নাগরিক পরিচয়ে প্রতারণার ফাঁদ
  • মুক্তির সংগ্রাম ছিল সমগ্র জনগনের: মেনন
  • খালেদা জিয়ার অর্থদণ্ড স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট
  • এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।