ঢাকা | রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
ঢাকা

গোপালগঞ্জ পৌর কমিউনিটি সেন্টার ও মসজিদের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

গোপালগঞ্জ সংবাদদাতা: প্রকাশিত হয়েছে: ২৩-১২-২০১৭ ইং । ১৭:১২:১২

১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত গোপালগঞ্জ পৌরসভার প্রথম ভবন ও সংলগ্ন এলাকার অন্যান্য ঘর, গাছপালা এবং পুরাতন মসজিদটি সরিয়ে নতুন একটি মসজিদ সহ কমিউনিটি সেন্টার নির্মান কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে শুক্রবার সন্ধ্যায়।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার ও গোপালগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করীম সেলিম প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন।
গোপালগঞ্জ পৌরসভার মেয়র কাজী লেয়াকত আলী লেকুর সভাপতিত্বে সেখানে আয়োজিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো: মোখলেসুর রহমান সরকার।
বিশেষ অতিথি হিসাবে আরও উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই’র সিনিয়র সহ সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম,অতি: ডিআইজি হাবিবুর রহমান (পিপিএম বার বিপিএম),গোপালগঞ্জের পুলিশ সুপার মো:সাইদুর রহমান খান( পিপিএম বার),কেন্দ্রিয় যুবলীগের সদস্য ব্যারিষ্টার শেখ ফজলে নাঈম,এনআরবি চেয়ারম্যান বদিউজ্জমান খান প্রমুখ।
প্রধান অতিথি হিসাবে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের পর শেখ সেলিম বলেন, বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন গোপালগঞ্জের উন্নয়ন করতে। কিন্তু তাকে হত্যার পর যেসব সরকার ক্ষমতায় এসেছে তারা গোপালগঞ্জের উন্নয়ন চায় নাই। ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে গোপালগঞ্জে উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা শুরু করেছে। মাঝখানে একবার বিএনপি ক্ষমতায় এসে সে ধারবাহিকতা বিনষ্ট করে। তারা বিশ্ববিদ্যালয় নির্মান কাজ সহ বিভিন্ন কাজ বন্ধ করে দেয়।
শেখ সেলিম আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু না হলে বাংলাদেশ হতো না।  এতোদিনে সবাই পাকিস্থানের গোলাম হয়ে যেতাম।


ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার দৃড় প্রত্যয় ব্যাক্ত করে শেখ সেলিম বলেন,দেশে অর্থনৈতিক,রাজনৈতিক,শিক্ষা,সামাজিক সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন করতে হবে। তবেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তাবায়িত হবে। ভাগ্য সহায় ছিলো বলেই ১৯৭৫ সালের সেই ভয়াবহ রাতে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে ছিলেন। বিদেশে থাকায় আল্লাহর রহমতে তারা বেঁচে গেছেন। তা না হলে আজ গোপালগঞ্জের উন্নয়ন হতো না। সারা দেশের উন্নয়ন হতো না। আজ আমরা নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা ব্রীজ তৈরী করছি। মাত্র ৫ বিলিয়ন রিজার্ভ থেকে শেখ হাসিনা ৪০ বিলিয়নের বিশাল রিজার্ভ তৈরী করতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশ এক সাথে দশটা পদ্মা ব্রীজ তৈরী করার যোগ্যতা রাখে বলেও তিনি বলেন।
গোপালগঞ্জ পৌরসভার সড়ক নির্মান তথা সকল প্রকার উন্নয়নে পৌরবাসীর সার্বিক সহায়তা কামনা করে শেখ সেলিম বলেন, আপনারা যদি রাস্তার জন্য জায়গা না ছাড়েন তবে উন্নয়ন কাজ ব্যাহত হবে। দয়া করে সবাই ত্যাগ স্বীকার করুন। তবেই সামগ্রিক জনগোষ্ঠি লাভবান হবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মস্থানের উন্নয়নে তিনি সকলের সহযোগীতার সাথে দোয়াও কামনা করেন।
মিউনিসিপল গভর্নেন্স ও সার্ভিসেস প্রজেক্টের আওতায় গোপালগঞ্জ পৌর কমিউনিটি সেন্টার ও মসজিদের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করার পূর্বে সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করীম সেলিম জেলা কেন্দ্রিয় কালীবাড়িতে প্রধান অতিথি হিসাবে কর্মসুচিতে উপস্থিত ছিলেন।



#এস আর/বাংলাপেইজ

শেয়ার করুন
সর্বশেষ খবর ঢাকা
  • গোপালগঞ্জে ৬ ইয়াবা ব্যবসায়ী আটক
  • গোপালগঞ্জে সেইন্ট মথুরানাথ পাগলা সমিতির মহাসম্মেলন চলছে
  • গোপালগঞ্জে খ্রীষ্টান সম্প্রদায়ের অবরোধ-বিক্ষোভ
  • নারায়ণগঞ্জের সেই অস্ত্রধারী নিয়াজুল লাপাত্তা:থানায় অভিযোগ!
  • বিদ্যালয়ে ভর্তি ফি ২০০০ টাকা!
  • ল্যাব এইডের সিসিইউতে নারায়ণগঞ্জের মেয়র আইভী:বিশ্রামে থাকার পরামর্শ চিকিৎসকদের
  • ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন স্থগিত
  • কোটালীপাড়ায় ত্রুটিপূর্ণ বই সরবরাহের অভিযোগ
  • মুকসুদপুরে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার-১
  • কাশিয়ানীতে মৃত সার ডিলারের নাম না পাল্টে ব্যবসা চলছে
  • জাবিতে সেলিম আল দীনের ১০ম প্রয়াণ দিবস পালিত
  • গোপালগঞ্জে শিক্ষকদের মানব বন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান
  • গোপালগঞ্জে বালুবাহি ট্রলির চাপায় বশেমুরবিপ্রবি’র ছাত্রী নিহত
  • বিষপান করে গৃহবধু গোপালগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি
  • গোপালগঞ্জে তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলা সমাপ্ত
  • ডিএনসিসিতে বিএনপির মেয়র প্রার্থী রিপন!
  • গোপালগঞ্জে বোরো ধানের চার ভাগের এক ভাগ সেচের পানিতে যাচ্ছে
  • গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত
  • রাজধানীতে দেড় বছর শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু
  • শীতে কাঁপছে ঢাকাও
  • এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।