ঢাকা | মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
নতুন প্রকল্পে বদলে যাচ্ছে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ব্রিটিশ রাজপ্রাসাদের প্রাচীরে উঠায় এক যুবক গ্রেফতার: শর্তসাপেক্ষে মুক্তি বাংলাদেশের দুই নেত্রী শেখ হাসিনা ও বেগম খালেদা জিয়ার লড়াইয়ের ইতি কাতার-সৌদি আরবে খালেদা জিয়ার সম্পদের খবর সর্ম্পণ মিথ্যা বানোয়াট: মধ্যে প্রাচ্যে বিএনপি আগামীকাল ফ্রান্স ডেমনস্ট্রেশনে  যোগ দিচ্ছে যুক্তরাজ্য বিএনপির  ২ শতাধিক  নেতাকর্মী দলীয় নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা : যুক্তরাজ্য বিএনপির  বিবৃতি নিউ ইয়র্কে বাস টার্মিনালে বিস্ফোরণ নিরাপত্তার স্বার্থে ৬০ কোটি সিসি ক্যামেরায় নজরদারীতে আসবে চীন রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনঃ আধুনিক নগরী গড়ার প্রতিশ্রুতি মেয়র প্রার্থীদের আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসে বৃটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে যুক্তরাজ্য বিএনপির বিক্ষোভ
মুক্তমত

মেয়র আরিফকে আরও জনপ্রিয় করে দিলো সরকার!

রুদ্র মিজান প্রকাশিত হয়েছে: ০৩-০৪-২০১৭ ইং । ১৯:২৪:২০

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। মেয়র আরিফ যতোটানা জনপ্রিয় ছিলেন সরকার তার চেয়েও বেশি জনপ্রিয় করে দিলো তাকে। মামলা, অভিযোগ যাই হোক। কোনটি মিথ্যা, কোনটি সত্য সিলেটের মানুষ তা খুব জানেন। একইভাবে বেশিরভাগ সিলেটী নোংরা, প্রতিহিংসার রাজনীতি সমর্থন করেন না। মহান মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক জেনারেল এমএজি ওসমানী, খন্দকার আব্দুল মালিক, স্পীকার হুমায়ূন রশীদ চৌধুরী, এম সাইফুর রহমান, আবুল মাল আবদুল মুহিত- খাটি সিলেটী হিসেবে তার প্রমাণ রেখেছেন।

দীর্ঘদিনের একটি ক্লিন সিটি প্রত্যাশা ছিলো সিলেটবাসীর। দখলমুক্ত থাকবে ছড়া, নদী ও ফুটপাত। যনাজট থাকবে না। ময়লা দুর্গন্ধ থাকবে না। এজন্য সিলেটের সুশীলরা রাস্তায় নেমে দাবি জানিয়েছিলেন। মানববন্ধন করেছেন। কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এরমধ্যেই নির্বাচনে জয়ী হয়ে মেয়র হলেন আরিফুল হক চৌধুরী। মাত্র কয়েক দিনেই নগরবাসীর কয়েক প্রত্যাশা পূরণ করে দিলেন। আরিফ ভাইয়ের কাছাকাছি যাওয়ার সৌভাগ্য হয়েছে। কিন্তু ব্যক্তিগত কোনো স্বার্থে/কাজে কখনও যাইনি। ব্যক্তি বা বিএনপি নেতা আরিফের চেয়ে অনেকের মতোই মেয়র আরিফ আমার অনেক প্রিয়।

আমি কেন, মেয়র আরিফের কাজের প্রশংসা করেছেন সিলেটের-১ আসনের এমপি, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেছিলেন, ‌'সিলেটে এখন অনেক ভালো কাজ হচ্ছে।সিলেট নগরী নিয়ে আরিফ অনেক সচেতন। মেয়র আরিফ নগরীর উন্নয়ন নিয়ে স্টাডি করছেন। তার উন্নয়নের চিন্তা ভাবনায় আই এম ভেরি প্লিজড্।' সেই ভালো কাজের মেয়রকে বারবার বরখাস্ত করা হচ্ছে। কারাগারে নেয়া হয়েছে। নির্যাতনের কোনো শেষ নেই। তবু আরিফ ভাই থেমে থাকেননি। তিনি বলেছেন, ‌‌‌'বহিষ্কার করা হলেও আমি মেয়র। জনগণের ভোটে নির্বাচিত মেয়র। মন্ত্রণালয় আমার দপ্তর কেড়ে নিয়েছে। কিন্তু জনগণের ভোট তো কেড়ে নিতে পারবে না। তাই আমি এখন দপ্তরবিহীন মেয়র।' তবে শেষ পর্যন্ত আদালত তার প্রতি ন্যায় বিচার করেছেন। মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সাময়িক বরখাস্তের আদেশ স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

সোমবার (৩ এপ্রিল) বিকেলে আরিফুল হকের দায়ের করা রিটের শুনানি শেষে এ আদেশ দেন বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মো. আতাউর রহমান খানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ। সবকিছুর পরে  এটিই সত্য জনগণ বোকা না। তাই জনতার কাছে মেয়র আরিফ ক্রমেই আরও জনপ্রিয় হয়েে উঠছেন। যেন সরকারই তাকে আরও জনপ্রিয়  করে দিলো।

শেয়ার করুন
সাম্প্রতিক খবর
সর্বশেষ খবর মুক্তমত
  • আসুন ভালোবাসার লড়াই করি
  • রাস্তা ঘাটের বেহাল দশার জন্য দায়ী কারা?
  • বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে আপনার করনীয়
  • সাইদুর এবং..
  • ‘বঙ্গশার্দূল’ ওসমানী অবহেলিত কেন ?
  • "খন্দকার মোশতাক চক্রের প্রেতাত্নারা নানা মুখোশে রাজনীতি করছে সর্বত্র"
  • নোবেল কি পাবেন শেখ হাসিনা?
  • ‘ঈদ’-‘ইদ’ বানান বিতর্ক, বাস্তবতা ও একটি প্রস্তাব
  • বাঙ্গালি দ্বারা রোহিঙ্গা নির্যাতন..!!!
  • হায় হেফাজত!
  • ‘আমরা সামরিক ভাষায় কথা বলতে চাই’
  • জনগণের হাতে দেশের মালিকানা ফিরিয়ে দেয়ার দৃঢ় প্রতিজ্ঞা বিএনপি’র
  • কঠিন অগ্নি পরীক্ষার মুখোমুখি দেশ
  • প্রকৃতির সর্বশ্রেষ্ঠ সৃষ্টির নাম বন্ধুত্ব
  • মাহবুব আলী খান 
  • বিএনপির রাজনৈতিক পুনর্বাসন রাষ্ট্র ক্ষমতা নাকি নির্বাসন?
  •   প্রবাসী বিএনপির কাণ্ডারি মুকিব : তপ্ত মরুর বুকে চাষাবাদ করছেন সবুজ ধানের শীষ
  • প্রসঙ্গ: ছাত্ররাজনীতি ও ছাত্র সংসদ নির্বাচন
  • তাদের নিরবতাই বড় প্রমাণ
  • ভুয়া অ্যাওয়ার্ডের মতোই কী রামপালের অনাপত্তি?
  • এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।